বাংলাদেশের দর্শকদের নায়িকা শ্রাবন্তী যে বার্তা দিলেন

 

এর আগেও বাংলাদেশের সিনেমা হলে দেখা গেছে কলকাতার মিষ্টি অভিনেত্রী শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়ের মুখ। সেটা কখনো সাফটা চুক্তিতে কলকাতার সিনেমায় কখনো বা ভারত-বাংলাদেশের যৌথ প্রযোজনার ছবিতে। তবে এবারই প্রথম বাংলাদেশের একক সিনেমায় অভিনয় করলেন এই অভিনেত্রী।

সে ছবির নাম ‘যদি একদিন’। তরুণ নির্মাতা মোস্তফা কামাল রাজ নির্মাণ করেছেন সিনেমাটি। এখানে গায়ক ও অভিনেতা তাহসান খানের সঙ্গে জুটি বেঁধেছেন শ্রাবন্তী। তাকে দেখা যাবে ‘ঢাকা অ্যাটাক’ খ্যাত অভিনেতা তাসকিন রহমানের বিপরীতেও।

আসছে ৮ মার্চ নারী দিবস উপলক্ষে ‘যদি একদিন’ মুক্তি পাবে। নির্মাতা রাজ জানান, প্রায় ২৫-৩০টি হলে প্রথম সপ্তাহে মুক্তি পাবে ছবিটি। দর্শক সাড়ার উপর নির্ভর করে পরের সপ্তাহে হল বাড়ানো হবে।

এদিকে ছবিটির মুক্তি উপলক্ষে প্রচারের ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে ‘যদি একদিন’ টিম। নানা আয়োজনে তারা ছবিটিকে পৌঁছে দিতে চাইছে দর্শকের কাছে। প্রচারে রয়েছেন ছবির প্রধান দুই অভিনেতা তাহসান ও তাসকিন। তবে একেবারেই নিরব ছবির একমাত্র নায়িকা শ্রাবন্তী।

এ ছবির জন্য বাংলাদেশেও আসছেন না তিনি। তার ফেসবুক-ইন্সট্রাগ্রামেও নেই তেমন কার্যক্রম। কেন নিজের প্রথম বাংলাদেশি ছবিটি নিয়ে নিরব শ্রাবন্তী? প্রশ্নের জবাবে জাগো নিউজকে মঙ্গলবার দুপুরে জানান, ‘আমি ভিসা পাইনি। বাংলাদেশের প্রথম চলচ্চিত্র হিসেবে প্রচণ্ড ইচ্ছে ছিলো ছবিটির প্রচারণায় থাকবো। সে অনুযায়ী পরিকল্পনাও করেছিলাম।

ছবিটি নিয়ে নানা রকম প্রচারণা চলছে আমি শুনেছি। মিস করছি সবাইকে। প্রচারণায় না থাকলেও ছবির একজন শিল্পী হিসেবে শুভকামনায় আছি আমি।’

তিনি বলেন, ‘দূরে থাকলেও ‘যদি একদিন’ ছবির জন্য শুভকামনা আছে আমার। আমি বিশ্বাস করি, এই ছবি দর্শক প্রশংসা পাবে। বাংলাদেশের সকল দর্শককে হলে গিয়ে ছবিটি দেখার জন্য বলবো আমি। সেইসঙ্গে প্রত্যাশা করছি এটি কলকাতাতেও মুক্তি পাবে।’

‘যদি একদিন’ ছবির কী এমন বিশেষত্ব রয়েছে যার কারণে দর্শক হলে আসবেন? জবাব দিলেন শ্রাবন্তী, ‘প্রথমত এই ছবির সবচেয়ে বড় বিশেষত্ব হলো এর গল্প। চমৎকার একটি গল্প নিয়ে মোস্তফা কামাল রাজ ছবিটি বানিয়েছেন। এখানে প্রেম আছে, প্রেমের যন্ত্রণা আছে। পাশাপাশি সংসারের দায়িত্ববোধ, আবেগ- অনেক কিছুই আছে যা দর্শককে মুগ্ধ করবে।

এছাড়া ছবির গুরুত্বপূর্ণ একটি বিষয় হলো এখানে ফ্রেশ একটা জুটি রয়েছে। প্রায় সময়ই দেখা যায় যে সিনেমাতে নতুন জুটিগুলো খুব ভালো সাড়া পায়। সেদিক থেকে আমি প্রত্যাশা করি তাহসান ভাইয়ের সঙ্গে আমার কেমিস্ট্রি ভালো লাগবে দর্শকের। সুন্দর কিছু গানও আছে ছবিতে।’

‘যদি একদিন’ সিনেমায় তাহসান, শ্রাবন্তী ও তাসনিক ছাড়া আরও অভিনয় করেছেন সাবেরী আলম, ফখরুল বাশার মাসুম, মিলি বাশারসহ অনেকে। গুরুত্বপূর্ণ একটি চরিত্রে অভিনয় করেছে শিশুশিল্পী আফরীন শিখা রাইসা।

কক্সবাজার ভিশন.কম'র প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, আলোকচিত্র, রেখাচিত্র, ভিডিওচিত্র, অডিও কনটেন্ট কপিরাইট আইনে পূর্বানুমতি ছাড়া ব্যবহার করা যাবে না।




এই পাতার আরও সংবাদ
error: Content is protected !!